বিদ্যালয়ের ইতিহাস

১৯৬৯ খ্রিস্টাব্দে দেশের পাট শিল্পে অনণ্য অবদান রাখার ঐতিহ্যবাহী শিল্পপ্রতিষ্ঠান জনতা জুট মিলস লিঃ প্রতিষ্ঠিত হয়। বিপুল সংখ্যক শ্রমিক-কর্মচারী আর কর্মকর্তার সন্তানদের শিক্ষা গ্রহনে প্রকট সমস্যা হতো। তখন জনতা মিলের ও আশে পাশের এলাকার শিক্ষার্থী ছেলে মেয়েরা সুদূর ঘোড়াশাল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করত। জনতা জুট মিলের ছাত্র-ছাত্রীরা তখন একতা জীপ  গাড়িতে করে ঘোড়াশাল স্কুলে যাওয়া-আসা করত। একদিন ঐ স্কুলে যাতায়াতের সময় জীপ গাড়িটি দূর্ঘটনায় পড়ে এবং কয়েকজন ছাত্র-ছাত্রী সামান্য আহত হয়। সেই দুঃখজনক দূর্ঘটনার পরই জনতা জুট মিলের কর্তৃপক্ষ মিলের শ্রমিক-কর্মচারী- কর্মকর্তাদের ছেলে-মেয়েদের যাতায়াত নিরাপত্তার কথা ভেবে ১৯৬৯ খ্রিস্টাব্দে মিলের অফিসার্স কোয়ার্টারের বর্তমানে পশ্চিম পার্শস্থ চারতলা একেবারে উত্তর প্রান্তের নিচতলায় গুটি কয়েক ছাত্র-ছাত্রী নিয়ে " জনতা আদর্শ বিদ্যাপীঠ (উচ্চ বিদ্যালয়) টি প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৭৫ খ্রিস্টাব্দে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সর্বপ্রথম এস.এস.সি পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে। বহু দিন পূর্বে হাটি হাটি পা-পা করে যাত্রা শুরু করে জনতা আদর্শ বিদ্যাপীঠ এখন ঐতিহ্য আর অব্যাহত উন্নতির সুনামধন্য গৌরবে নরসিংদী জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো মধ্যে অন্যতম হিসেবে পরিগনিত।